পুরস্কৃত হলেন ৭ নারী উদ্যোক্তা


 

সাতজন সফল নারী উদ্যোক্তাকে অ্যাওয়ার্ড দিয়েছে লাইফ স্টাইল ম্যাগাজিন কালারস। নতুন কিছু করার মাধ্যমে সমাজ পরিবর্তনে অবদান রাখায় উদ্যোক্তাদের ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে ‘কালারস প্লাটিনাম বিজনেস ওমেন অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ দিয়ে সম্মানিত করল পত্রিকাটি।

নিজ নিজ ক্ষেত্রে অবদান রাখায় এই পুরষ্কার পেয়েছেন  সাত নারী উদ্যোক্তা। এঁদের কেউ ছোট পরিসরে ব্যবসা শুরু করেন, কেউ বা ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করে নিজের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি আরো কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছেন।

গতকাল শনিবার রাতে রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে এক অনুষ্ঠানে সফল উদ্যোক্তাদের হাতে অ্যাওয়ার্ড তুলে দেওয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ সময় ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ উপস্থিত ছিলেন।

ইংরেজি লাইফ স্টাইল ম্যাগাজিন কালারস ঢাকা ও নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত হয়। পত্রিকাটি এবারই প্রথমবার এ ধরনের আয়োজন করল। এ আয়োজনে প্রধান সহযোগী ছিল বেসরকারি দ্য সিটি ব্যাংকের নারী উন্নয়নবিষয়ক কর্মসূচি ‘সিটি আলো’। এ ছাড়া ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকা ও জেসিএক্স অনুষ্ঠান আয়োজনে সহযোগিতা করেছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কালারসের সম্পাদক জাকারিয়া মাসুদ। এ ছাড়া সিটি ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ মো. মারুফ, হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের মহাব্যবস্থাপক মার্ক রেইসিংগার বক্তব্য দেন।

প্লাটিনাম বিজনেস ওমেন অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন পোশাকের ডিজাইনভিত্তিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ওয়ারাহর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুমানা চৌধুরী। এনচান্টেড ইভেন্টস অ্যান্ড প্রিন্টের উদ্যোক্তা সৌসান খান মঈন পেয়েছেন বিজনেস এন্টারপ্রাইজ অব দ্য ইয়ার পুরস্কার। চামড়াজাত পণ্যের ব্যবসায়ী কারিগরের তানিয়া ওহাব পেয়েছে এসএমই এন্টারপ্রাইজ অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড। ভারী শিল্পের যন্ত্রপাতি নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠান নীলা অ্যান্ড সন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমেনা খাতুন ইনোভেটিভ প্রজেক্ট অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছেন। ইভেন্ট  ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি সুগার কমিউনিকেশন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৃণা ফাল্কগ্দুনী পেয়েছেন স্টার্টআপ অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড। লা মোডের ফাহমিদা ইসলাম ইনোভেটিব সলিউশন অব দ্য ইয়ার ইন আইটি পুরস্কার পেয়েছেন। আর যেসব উদ্যোক্তার নিজস্ব অফিস নেই তাদের অফিস ব্যবহারের ব্যবস্থা করে দিয়ে অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন মোড় নামের একটি প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তা নাবিলা নওরিন ও নাহিদ শারমিন।

উদ্যোক্তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান আজিজ আল মাহমুদ, বিটিআরসির সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ, অভিনেত্রী সম্পা রেজা, সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ কানিজ আলমাস খান। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, অভিনেতা মাহফুজ আহমেদ, শাহেদ, কণ্ঠশিল্পী শুভ্র দেব প্রমুখ।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে আরও উদ্যোক্তা দরকার। এজন্য সরকার নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে জোর দিচ্ছে। নারী উদ্যোক্তাদের সুবিধার জন্য সরকার বিশেষ নীতিমালাও করেছে। নীতি সহায়তার পাশাপাশি নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য বাজেটে ১০০ কোটি টাকার স্টার্টআপ ফান্ড রাখা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীরা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু এটি যথেষ্ট নয়। নারীদের পুরস্কৃত করা নতুন উদ্যোক্তা তৈরিতে ভূমিকা রাখবে।

 

0