বিনা মূল্যের পড়াশোনায় অনলাইন কোর্স


শিক্ষা ব্যবস্থায় তথ্যপ্রযুক্তি এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। তথ্যপ্রযুক্তির প্রসার শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়ে এসেছে যুগান্তকারী সব পরিবর্তন। কেবল তাই নয়, ইন্টারনেটের শক্তি ব্যবহার করে এখন অনলাইনে পড়ালেখা বিশ্বব্যাপী গুরুত্বপূর্ণ একটি স্থান দখল করে নিয়ে চলেছে। অনলাইনে এখন স্বাধীনভাবে প্রচুর প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন বিষয়ে কোর্স চালু করেছে। পাশাপাশি এখন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ই অনলাইন কোর্স চালু করেছে। এসবের মধ্যে আবার অনেক কোর্স রয়েছে একেবারেই বিনামূল্যেই। এর আগে একটি সংখ্যায় আমরা অনলাইনে প্রোগ্রামিং শেখার জন্য সেরা কিছু বিনামূল্যের কোর্সের কথা জানিয়েছিলাম। এর বাইরে আজকের লেখায় আরও কিছু বিনামূল্যের কোর্সের কথা জানানো হলো।

স্ট্যানফোর্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এভরিহয়্যার

স্টানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবেই স্বীকৃত। বিশ্বসেরা এই বিশ্ববিদ্যালয়েরও রয়েছে অনলাইনে বিনামূল্যের কিছু কোর্স। http://see.stanford.edu সাইটে গিয়েই এখানাকর বিনামূল্যের সব কোর্সে ভর্তি হওয়া যাবে। একটি কম্পিউটার আর ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া এখানকার কোর্সের জন্য আর কিছুর প্রয়োজন নেই। যেকোনো সময় যেকোনো স্থান থেকেই এখানকার বিভিন্ন ক্লাস লেকচারের ভিডিও দেখা যাবে এবং সেগুলো ডাউনলোডও করা যাবে। এখানে রয়েছে বিভিন্ন কোর্সের পূর্ণাঙ্গ সিলেবাস, হ্যান্ডআউট লেকচার, হোমওয়ার্কের তালিকা এবং পরীক্ষার প্রশ্নপত্র। আর অনলাইনে স্ট্যানফোর্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এভরিহয়্যার কোর্সে যারা অনলাইনে যুক্ত রয়েছে, তাদের সমন্বয়ে এখানে রয়েছে সোস্যাল নেটওয়ার্ক। ফলে এই নেটওয়ার্কে যুক্তদের সাথেও কোর্সের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে। পিসি, ম্যাক বা মোবাইল ডিভাইস থেকে প্রবেশ করা যাবে এখানে। ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ের এই প্রোগ্রামে রয়েছে মূল চারটি ভাগ। এগুলো হলো—ইন্ট্রোডাকশন টু কম্পিউটার সায়েন্স, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, লিনিয়ার সিস্টেমস অ্যান্ড অপটিমাইজেশন এবং অ্যাডিশনাল স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সেস। এর মধ্যে ইন্ট্রোডাকশন টু কম্পিউটার সায়েন্সের পাঠিত বিষয়গুলো হচ্ছে প্রোগ্রামিং মেথডোলজি, প্রোগ্রামিং অ্যাবস্ট্রাকশন এবং প্রোগ্রামিং প্যারাডিগম। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের মধ্যে রয়েছে ইন্ট্রোডাকশন টু রোবোটিকস, ন্যাচারাল ল্যাংগুয়েজ প্রসেসিং এবং মেশিন লার্নিং। লিনিয়ার সিস্টেম অ্যান্ড অপটিমাইজেশনে রয়েছে দ্য ফুরিয়ার ট্রান্সফর্ম অ্যান্ড ইটস অ্যাপ্লিকেশন, ইন্ট্রোডাকশন টু লিনিয়ার ডায়নামিকাল সিস্টেমস, কনভেক্স অপটিমাইজেশন ১ ও ২। আর অ্যাডিশনাল স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সেস-এর মধ্যে রয়েছে প্রোগ্রামিং ম্যাসিভলি প্যারালাল প্রসেসর, আইফোন অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং এবং সেমিনার অ্যান্ড ওয়েবিনারস। ক্রিয়েটিভ কমন লাইসেন্সের আওতায় এসব কোর্সের যেকোনো উপকরণ যেকেউ বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবে।

এআই ক্লাসরুম

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে আগ্রহ রয়েছে অনেকেরই। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে বিনামূল্যে অনলাইনে পড়ালেখা করতে তাই স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের গবেষক অধ্যাপক সেবাস্তিয়ান থ্রুন চালু করেছিলেন এআই ক্লাসরুম। তার সাথে ছিলেন গুগল’র ডিরেক্টর অব রিসার্চ পিটার নরভিগ। চালু হওয়ার পর প্রায় ৫৮ হাজার শিক্ষার্থী এতে ভর্তি হলেও নানা কারণে এটি আর চালু নেই। তবে সফলভাবে এখান থেকে কোর্স করার পরে সকলকে প্রত্যয়নপত্র প্রদান করা হয়। এখনো এখানে সব ধরনের কোর্স ম্যাটেরিয়াল পাওয়া যাচ্ছে। রোবোটিক্স, কম্পিউটার ভিশন, ন্যাচারাল ল্যাংগুয়েজ প্রসেসিং, মেশিন লার্নিংসহ নানান বিষয় এখানে অন্তর্ভূক্ত ছিলো। www.ai-class.com সাইটে গেলে এর সব তথ্য পাওয়া যাবে।

ইউডাসিটি

এআই ক্লাসরুম বন্ধ হয়ে যাবার পর সেবাস্তিয়ান থ্রুনের উদ্যোগেই প্রতিষ্ঠিত হয় অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয় ইউডাসিটি। www.udacity.com সাইট থেকে পরিচালিত এই অনলাইন কার্যক্রমে বিনামূল্যে ভর্তি হওয়া যাবে বিভিন্ন বিষয়ে। এর মধ্যে রয়েছে বিল্ডিং এ সার্চ ইঞ্জিন, ডিজাইন অব কম্পিউটার প্রোগ্রামস, ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ, প্রোগ্রামিংয়ে রোবোটিক কার, অ্যাপ্লাইড ক্রিপ্টোগ্রাফি প্রভৃতি। এছাড়া আরও কিছু আকর্ষণীয় কোর্স চালু হওয়ার পথেই রয়েছে। এখানকার বিভিন্ন কোর্সের শিক্ষক হিসেবে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিজ্ঞ সব অধ্যাপকরা। ইউডাসিটি চালু হওয়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই বিশ্বের প্রায় ১৯০টি দেশের দেড় লক্ষাধিক শিক্ষার্থী ভর্তি হয় এর বিভিন্ন অনলাইন কোর্সে। এখানে প্রতি সপ্তাহেই নতুন নতুন ক্লাসের ভিডিও, কুইজ, প্রশ্ন, অ্যাসাইনমেন্ট প্রভৃতি আপলোড করা হয়। আর এখানে প্রতিটি শিক্ষার্থীর জন্য ভিন্ন ভিন্ন প্রশ্ন প্রণয়ন করা হয়ে থাকে।

কোর্স এরা

ইউনিভার্সিটি অব পেনসিলভ্যানিয়া, প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি, স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং ইউনিভার্সিটি অব মিশিগানের মতো কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হয় কোর্স এরা। বিজ্ঞান, সমাজ বিজ্ঞান, স্বাস্থ্য, গণিতসহ নানান বিষয়ে এখানে বিভিন্ন কোর্স পরিচালিত হয়। ৪ থেকে ১২ সপ্তাহের বিভিন্ন মেয়াদের কোর্স রয়েছে এতে। আর একেকটি কোর্স একেকটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিচালিত হয়। এই কোর্সগুলোর মূল ক্যাটাগরিতে রয়েছে হিউম্যানিটিস অ্যান্ড সোস্যাল সায়েন্স, কম্পিউটার সায়েন্স, ম্যাথমেটিক্স অ্যান্ড স্ট্যাটিসটিক্স, হেলথকেয়ার, মেডিসিন অ্যান্ড বায়োলজি, ইকোনমিক্স, ফিন্যান্স অ্যান্ড বিজনেস, সোস্যাল নেটওয়ার্ক অ্যান্ড ইনফরমেশন প্রভৃতি। এসব ক্যাটাগরির প্রতিটিতেই একাধিক কোর্স রয়েছে এখানে। পাশাপাশি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়েও এখানে শীঘ্রই কোর্স চালু হবে। কোর্সগুলো ডিজাইন করেছেন বিশ্বখ্যাত সব বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরা। যেকেউ যেকোনো স্থান থেকে ভর্তি হতে পারবে এসব কোর্সে। এখানেও রয়েছে এখানকার শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে তৈরি নেটওয়ার্ক, যেখানেও যেকোনো কোর্সের যেকোনো বিষয়ে প্রশ্ন করলে কারও না কারও কাছে তার জবাব পাওয়া যায়। এই সাইটের ঠিকানা www.coursera.org

0