‘স্পষ্ট ধারণা নিয়ে আবেদন করলেই ঋণ পাবেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা’


চলমান করোনা পরিস্থিতিতে হতাশ না হয়ে একে সুযোগ হিসেবে দেখা উচিত। এসএমই উদ্যোক্তারা স্পষ্ট ধারণা নিয়ে আবেদন করলে ঋণ নিয়ে এইখাতে দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন। 

চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব গ্রুপ ও আইপিডিসি ফাইন্যান্স এর যৌথ আয়োজনে অ্যাকসেস টু ফ্যাইন্যান্সিং ফর এসএমই এন্ট্রাপ্রেনার্স অ্যান্ড দেয়ার প্রিপারেশন ইন দিস প্যান্ডেমিক বিষয়ক লাইভ শোতে এসব কথা বলেন বক্তারা। গত রোববার ২৮ জুন এসএমই উপলক্ষ্যে দিনদিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শেষ দিনে চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব গ্রুপের অফিসিয়াল ফেসবুক গ্রুপ এবং পেইজে লাইভটি সম্প্রচার করা হয়।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ভাইপার লেদার এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও এস এম মোস্তাফিজুর রহমান বায়েজিদ।

অনুষ্ঠানে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিজওয়ান ডি শামস জানান, তারা সবসময় ভালো উদ্যোক্তার খুঁজে নিয়ে তাকে উৎসাহিত করেন। ফাইন্যান্সিং ওপর ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের ভুল ধারণাগুলো দূর করতে পারলে তারা উপকৃত হবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ২০১৫ সাল থেকে আইপিডিসি ‘বিজনেস কনসেপ্ট’ ও ‘ইম্প্যাক্ট অন দ্যা সোসাইটি’র মতো বিষয়গুলো বিবেচনা করে ঋণ দেওয়া শুরু করে। 

বর্তমানে আইপিডিসি ফাইন্যান্স কর্পোরেট লোন, এমএমই লোন, এসসিএফ লোন এবং আরো বিভিন্ন ধরনের সেবা দিয়ে থাকেন। গ্রাহকরা শর্ট- টার্ম (১২ মাস), মিড-টার্ম (৩৬ মাস) এবং টার্ম-লোন (৪৮-৬০ মাস) হিসেবে নিতে পারেন। এছাড়া, ৪ শতাংশ সুদে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বিশেষ একটি ঋণের ব্যবস্থা চালু করেছেন বলেও জানান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ডেপুটি এমডি রিজওয়ান ডি শামস।

ভিসিপিইএবি এর সাধারণ সম্পাদক শওকত হোসেন বলেন, বাংলাদেশে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল নতুন কনসেপ্ট হলেও বিদেশে এর প্রচলন অনেক আগে থেকেই। ভেঞ্চার ক্যাপিটাল মুলত স্টার্ট আপ এসএমইকে সহযোগিতা করে থাকে যেখানে আইডিয়া, প্রটোটাইপ ইত্যাদি স্টেজে থাকা স্টার্ট আপগুলো যুক্ত বলে জানান তিনি। 

বিআইবিএম’র অধ্যাপক এবং পরিচালক (গবেষণা, উন্নয়ন ও পরামর্শ এবং প্রশাসন ও হিসাব) ড. প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জি বলেন, মালয়েশিয়া, ইন্ডিয়া, শ্রীলংকার মতো দেশে এসএমই’র অবদান ৪০ থেকে ৬০ শতাংশ আর বাংলাদেশে তা ২৫ শতাংশ। এটাকে আমাদের বিফলতা না ভেবে সুযোগ হিসেবে দেখা উচিত। কারণ এখনো অনেক সুযোগ খালি আছে এসএমই উদ্যোক্তাদের জন্য। 

তিনি আরও বলেন গ্রাম বা শহর যে যেখানে আছেন তাদের স্ব স্ব অবস্থানে রেখেই সম্পদ ব্যবহারে জোর দেওয়া উচিত। এই করোনাকাল, সবাইকে সাথে নিয়ে কাজ করা শিখিয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশ ব্যাংক এর যুগ্ম পরিচালক আফজাল হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনাগুলো ‘বরাদ্দ’ হিসেবে না এসে ‘ঋণ’ হিসেবে এসেছে। এর অর্থ হলো এই ঋণ আপনাকে নির্দিষ্ট সময় পর শোধ করতে হবে এবং আপনার এই পরিশোধিত ঋণের টাকা আবার অন্য একজন পাবেন। এটাকে একটা রিভলভিং প্রসিডিওর এর সাথে তুলনা করা যেতে পারে।

 

এফ এম প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ এর এমডি মোহাম্মদ গাজি তৌহিদর রহমান বলেন, সফল হওয়ার জন্য আমরা যাদের সাথে কাজ করি তাদের স্বস্তি দেওয়া খুবই জরুরী। এতে ফান্ড বা সাহায্য পাওয়াটা খুব সহজ হয়ে যায়। প্রথমে নিজের চেষ্টায় এগুতে হবে এবং একটা কিছু করে দেখাতে হবে তারপর কোনো ফাইন্যান্স কোম্পানি এসে সহায়তা করবে। এছাড়াও, এসএমই উদ্যোক্তাদের সময় উপোযোগি সিদ্ধান্ত নেওয়ার এবং ভেবেচিন্তে নতুন কিছু করার জন্য পরামর্শও দেন তিনি।

সবশেষে অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ভাইপার লেদার এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও এস এম মোস্তাফিজুর রহমান বায়েজিদ বলেন, এসএমই ফাইন্যান্সিং এর উপর ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়িদের যেসব ভুল ধারণা ছিল তা এই অনুষ্ঠানের পর অনেকাংশে কমে যাবে।

 

Access to Financing For SME Entrepreneurs and Their Preparation in This Pandemic

Access to Financing For SME Entrepreneurs and Their Preparation in This Pandemic

Posted by চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব on Sunday, June 28, 2020

0